দ্য পিপল ডেস্কঃ তিনি বিধায়ক, তিনি বাতিওয়ালা গড়ি চড়েন আবার চাষও করেন। কখনও চাষ করার ফাঁকে হাতের মাটি পরিস্কার করে সই করেন, আবার কখনও নিজেদের বাড়ির খড়ের চাল নিজেই তৈরি করেন।

তিনি চূড়ামনি মাহাতো, গোপীবল্লভপুরের তৃণমূলের বিধায়ক। চাষের কাজ করছেন, কাজের ফাঁকেই জমির আলে বসে প্রয়োজনীয় কাগজে সই করছেন, এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

গোটা রাজ্য জুড়ে কাটমানি বিতর্কে উত্তাল তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের একাংশের বিরুদ্ধে। কাটমানি তোলা নিয়ে বিরোধীদের কটাক্ষের পাল্টা জবাব দিতে মুখ খুলতে হয়েছে স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রীকে।

সেখানে বিধায়ক হয়েও চূড়ামনি মাহাতো মাটির কাছাকাছি থেকে গেছেন। একই দলের একজন বিধায়কের এমন আচরণ নতুন দৃষ্টান্ত তৈরি করেছে।

পারফরম্যান্স খারাপ থাকায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তোপের মুখে পড়ে ঝাড়গ্রামের জেলা সভাপতির পদ খোয়াতে হয়েছিল চূড়ামনি মাহাতোকে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিয়ে সাধারণ থাকতে পছন্দ করেন, দলের নেতা-কর্মীদেরও সাধারণ থাকার বার্তা দিয়েছেন বার বার। চূড়ামনি মাহাতোর এই ব্যতিক্রমী উদাহরণ আবার তাঁকে সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে টানতে পারে।   

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here