দ্য পিপল ডেস্কঃ এক বিশাল আকার পাইথন। আর বছর-দশেকের এক বালক।

পাইথনটি কামড়ে ধরেছে বালকের ডান পা। এই পরিস্থিতিতে ঠান্ডা মাথায় নিজেকে উদ্ধার করেছে সে।

কাজে লাগিয়েছে উপস্থিত বুদ্ধি। বয়সে ছোট হলেও উপস্থিত বুদ্ধি তা যথেষ্ট।

পাইথনটির মাথায় বাম পা দিয়ে আঘাত করে সে। তারপর পাইথনটি ছেলেটির আরেকটি পা কামড়ে ধরে।

সেই সময় স্থানীয়দের সতর্ক করে বনদফতরে খবর দেওয়া হয়।

বনদপ্তরের কর্মীরা এসে এই সাপটিকে উদ্ধার করে। এই ভাবেই রক্ষা পেল বছর-দশেকের ওই বালক।

সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে ব্যাঙ্গালোরের মান্নাগুরু মন্দিরের সামনে।

সূত্রের খবর, ওই মন্দিরে এসেছিল বছর-দশেকের বালক সংকল্প জি পাই। কানাড়া স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র।

আচমকাই হাইড্রেন থেকে একটি পাইথন এসে তার ডান পা কামড়ে ধরে।

এই সময়ে ভয় না পেয়ে ঠান্ডা মাথায় সাপটির মাথায় বাম পা দিয়ে আঘাত করে।

আচমকা আঘাতে ডান পা ছেড়ে বাম পা কামড়ে ধরে সাপটি। ওই সময়ই স্থানীয়দের সতর্ক করে ছেলেটি।

এরপর স্থানীয়রাই খবর দেয় বনদপ্তরে। সাপটি ফের লুকিয়ে পড়ে হাই ড্রেনে।

বনদপ্তর আধিকারিকরা এসে সাপটিকে উদ্ধার করে। সঙ্গে ছেলেটিকেও।

বনদপ্তরের আধিকারিকরা সাপটিকে নিয়ে যায় পিলিকুলা বায়োলজিক্যাল পার্কে।

ছেলেটির বাবা জানিয়েছেন, ক্ষতটি সেরে এসেছে। খবরটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়।