দ্য পিপল ডেস্কঃ

শেষমেশ বিজেপির ঝান্ডা হাতে পথে নামতে চলেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। বিজেপি সূত্রের খবর, কলকাতার প্রাক্তন মহানাগরিকের মান ভেঙেছে। বিজেপির হয়ে প্রচার-মিছিলে অংশ নেবেন বলে ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছেন শোভন।

বিজেপি নেতৃত্বের বিশ্বাস, তাঁকে পথে নামাতে পারলে পুরসভা ভোটে কলকাতা পুরসভায় গৈরিকীকরণটা হবে কেকওয়াকের শামিল। সেই কারণেই শোভনের মানভঞ্জনে কোমর কষে নামেন গেরুয়া নেতৃত্ব।

গত বছরের ১৪ আগস্ট বন্ধুনী বৈশাখীকে নিয়ে দিল্লিতে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন শোভন চট্টোপাধ্যায়।  হাতে  তুলে নেন গেরুয়া নিশান।

যদিও দিল্লি থেকে ফেরার পরে পরেই বিজেপির রাজ্য নেতৃত্বের সঙ্গে মনান্তরে জড়িয়ে পড়েন শোভন। দলীয় কোনও কর্মসূচিতে যোগ দিতে দেখা যায়নি তাঁকে। দলের দিল্লির কয়েকজন নেতা কলকাতায় এলেও, এবং আমন্ত্রণ জানানো সত্ত্বেও শোভন তাঁদের সঙ্গে দেখা করেননি বলে অভিযোগ।

নতুন বছর পড়তেই ফের শোভনকে সক্রিয় করতে উদ্যোগী হন বিজেপি নেতৃত্ব। দিল্লির এক বিজেপি নেতা নিয়মিত যোগাযোগ রাখতে শুরু করেন শোভনের সঙ্গে। কলকাতায় শোভনের বাড়িতে গিয়ে বৈঠকও করেন। সেখানে শোভনকে বোঝানো হয়, কলকাতা পুরসভায় ভোট হবে, অথচ শোভন ফ্ল্যাটবন্দি হয়ে থাকবেন, তা হয় না। শোভন-বৈশাখীকে যথাযোগ্য মর্যাদা দেওয়ার আশ্বাসও কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের তরফে দেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

কলেজ জীবন থেকে রাজনীতি করা শোভন গত লোকসভা নির্বাচনেও কার্যত ঘরবন্দি হয়েছিলেন। পরে বিজেপির তরফে যোগাযোগ করা হয় শোভনের সঙ্গে। তাঁকে যোগ দিতে বলা হয় বিজেপিতে। আজীবন রাজনীতি করা মানুষটি গেরুয়া শিবিরের এই প্রস্তাব ফেলতে পারেননি।

গেরুয়া শিবির সূত্রের খবর, বেরিয়েছে ওয়ার্ড বিন্যাসের খসড়া তালিকা। ওই তালিকা নিয়ে কারও কোনও আপত্তি থাকলে, জেলাশাসককে তা জানাতে হয় পনের দিনের মধ্যে। কোনও অভিযোগ জমা না পড়লে খসড়া তালিকায়ই শিলমোহর পড়ে নির্বাচন কমিশনের।

বিজেপি সূত্রের খবর, খসড়া তালিকা চূড়ান্ত হলেই পুরোপুরি পথে নামবেন শোভন।যথাযোগ্য মর্যাদা দিয়ে পথে নামানো হবে বৈশাখীকেও।

কলকাতা পুরসভায় এখনও ফিকে হয়নি শোভন-ম্যাজিক। সেটাকে কাজে লাগিয়েই লালবাড়ির দখল নিতে চাইছে গেরুয়া শিবির।

পুরসভার মাথায় ঘাসফুল না পদ্মফুল কোন নিশান উড়বে? বলবে সময়।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here