দ্য পিপল দেস্ক : দুদিনের বৃষ্টি, তাও একানাগাড়ে না। তাতেই জলমগ্ন বিধাননগর পৌরনিগমের ৪ নম্বর ওয়ার্ড নারায়ণপুরের শরৎপল্লী এলাকা।


বেশ কিছু বাড়িতে ঘরের মধ্যেও হাঁটু সমান জল। এদিন স্থানীয় এক বাসিন্দা জানান, বারবার পৌরনিগমকে জানানোর পরেও কোনও সুরাহা মেলেনি। এই পরিস্থিতির জেরে ক্ষুব্ধ শরৎপল্লী এলাকার বাসিন্দারা।


বাসিন্দাদের অভিযোগ টানা ১৫-২০ মিনিট বৃষ্টি হলেই জল জমে যায় শরৎপল্লী এলাকায়।


এলাকার আরও এক বাসিন্দা জানান, এত জল হয় যে রান্না খাওয়া পর্যন্ত বন্ধ হয়ে যায়, বাচ্চারা পড়াশোনাও করতে পারেনা ঠিক করে, বাড়িতে বৃদ্ধ বাবা, মাকে নিয়ে কষ্টের মধ্যে দিন কাটাতে হচ্ছে।


এলাকা ঘুরে দেখা গেল, শুধুমাত্র রাস্তাঘাটই না প্রায় প্রতিটি ঘরে ঘরেই হাঁটু সমান জল এবং তাঁদের রান্না খাওয়া বন্ধ।


প্রতিবছর বর্ষায় জল জমে এবং এইভাবে কষ্টের মধ্যে দিন কাটাতে হয় শরৎপল্লী এলাকার বাসিন্দাদের।


বিধান নগর পৌরনিগমের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলরকে এ বিষয়ে জানানো হয়।


এছাড়াও বিধাননগর পৌরনিগমকে বারবার চিঠি দেওয়া হয় কিন্তু তাতেও কোনও সুরাহা মেলেনি বলে অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের।