দ্য পিপল ডেস্কঃ আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি ডানলপ মাঠে জনসভা করতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এদিকে সকালেই জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে যে, একই মাঠে ২৪ তারিখ মোদীর পাল্টা সভা করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এই রকম অবস্থায় ভোট ঘোষণার আগে সম্ভবত শেষবারের মতো বাংলায় পা রাখতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রো প্রকল্পের উদ্বোধন করার পাশাপাশি হুগলিতে তিনি একটি জনসভাও করবেন। সেই সভার ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই ওই একই মাঠে সভা করতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

একদিকে সকাল থেকেই বিজেপি নেতৃত্বের তরফে জানানো হয় যে সাংসদ লকেট চ্যাটার্জি আসছেন ডানলপ মাঠ পরিদর্শনে। সেই মত মাঠ ও মাঠ সংলগ্ন এলাকা পরিষ্কারের কাজও শুরু করে বিজেপি নেতৃত্ব।

অপরদিকে একই সময়ে মাঠ পরিদর্শন করতে আসার কথা ঘোষণা করে তৃণমূল নেতৃত্বও। তৃণমূলের তরফে বিধায়ক ও মন্ত্রী তপন দাশগুপ্ত, অসীমা পাত্র ও জেলার সভাপতি দিলীপ যাদব মাঠ পরিদর্শনে আসার কথা ঘোষণা করে শাসকদল। এর খানিক পরই দেখা যায় ‘অভিনব’ দৃশ্য! একইসময়ে ডানলপ মাঠ পরিদর্শনে উপস্থিত দুই পক্ষের প্রতিনিধি-ই।

মুখ্যমন্ত্রীর সভা প্রসঙ্গে তৃণমূলের জেলা সভাপতি দিলীপ যাদব জানান, “এটা কোনও পাল্টা সভা নয়। দলনেত্রী সব জেলাতেই সভা করছেন।

তাদের পরিকল্পনাতেই ছিল এই জেলায় এই মাসেই সভা করার। আর জেলায় বড় মাঠের সংখ্যা খুবই কম। তাই ডানলপ মাঠকেই মুখ্যমন্ত্রীর সভার জন্য নির্বাচন করা হয়েছে। এটা কোনও পাল্টা সভা নয়।

বিজেপি সাংসদ লকেট চ্যাটার্জি বলেন, “শাসকদলের পায়ের তলায় মাটি সরে গিয়েছে। তাই তাঁরা যেখানেই যাচ্ছেন, তাঁদের অনুসরণ করছে তৃণমূল। তবে যতই নকল করুন না কেন, আগামী বিধানসভা ভোটে মানুষ বুঝিয়ে দেবে যে নকল করেও মিলবে না কোনও ফল!