দ্য পিপল ডেস্ক : চিন-ভারত সংঘর্ষের মতোই দীর্ঘদিনের সংঘাত আফগান সরকার ও তালেবানের। সমঝোতার মাধ্যমে এবার বৈঠকে বসতে চলেছে দুই তরফ।

সূত্রের খবর, আগামী শনিবার কাতারের রাজধানী দোহায় অনুষ্ঠিত হবে এই শান্তিপূর্ণ বৈঠক। দুই দেশের মধ্যে শান্তিপূর্ণ পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনার জন্যই এই বৈঠকের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

কাতার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, এদিনের এই বৈঠকে ৬ তালেবানি বন্দীদের মুক্তির বিষয় নিয়েও আলোচনা হবে।

অন্যদিকে তালেবান সরকারের তরফে জানান হয়েছে, একটি পরিপূর্ণ ইসলামিক শাসনব্যবস্থা গড়ার উদ্দেশ্যেই তাঁরা এই বৈঠকে অংশ নেবেন।

বিশিষ্টরা মনে করছেন, এই দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পরেই দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ বিরতির সূচনা হবে।

প্রসঙ্গত, গত এক বছর ধরে তালেবান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আলোচনায় বসলেও সেখানে থাকতে নারাজ ছিল আফগানিস্তান।

১৮ জন আফগান সেনা পনবন্দী করে তালেবানি সেনাদের মুক্তির দাবি জানিয়েছে।

সেই দাবি মেনে সম্প্রতি তালেবান সরকারের শর্তপূরণের জন্য কয়েক হাজার তালেবানিকে মুক্তি দিয়েছে আফগান সরকার।

জানা যাচ্ছে, প্রায় ৫ হাজার তালেবান মুক্তি পেয়েছে।

তালেবান সরকারের সঙ্গে আলোচনার জন্য শুক্রবার আফগানিস্তানের আব্দুল আব্দুল্লাহরের নেতৃত্বে একটি দল কাতারের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে।