দ্য পিপল ডেস্কঃ চোখে বড় ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন । একদিন সেও বাইচুং ভুটিয়া, সুনীল ছেত্রীর মতো দেশের জার্সিতে খেলবে । বিশ্বকাপে খেলবে তাঁর দেশ ।  ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবে । ছোট থেকেই রোনাল্ডো, মেসির খেলা দেখে বড় হয়েছে ইটাহারের ফুটবলপ্রেমী দীপক বর্মন ।

 তবে কোথাও যেন পিছু টানছে আর্থিক অনটন । বাবা কাজ করেন সামান্য মুড়িমিশালির দোকানে। আর দিন মজুরের কাজ করে কোনও মতে সংসার চালায় তাঁর মা । একবেলা খাবার খেলে আর একবেলা আধপেটা অবস্থায় দিন কাটে বাংলার এই ছোট্টো মেসির । বাড়ি থেকে বারবারই বলত, গরীবের ছেলে খেলাধূলা শিখে কি করবি ? এর চেয়ে পড়াশোনা কর । বড় হয়ে একটা চাকরি করবি । বাড়ির কথা মেনে পড়াশোনাতে মন বসাতে চেষ্টা করলেও কোথাও যেন হারিয়ে যেত সে । মন থাকত সবুজ ঘাস, ফুটবল, হোর্স এবং জার্সির পানে । ফুটবলই তো তাঁর জীবন । তাকে ছাড়া কি ভাবে কাটাবে ।    

তবে কথায় আছে কষ্ট, লড়াই এবং ধৈর্য ধরলেই ফল মিলবে । তাঁর খেলায় বারবারই মুগ্ধ করেছে সবাইকে । বীরভূম, নিউ জলপাইগুড়ি সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় খেলেছে দশম শ্রেনীর এই ছাত্র । তারপরই জি বাংলা জেলা ফুটবল প্রতিযোগিতায় নাম উঠে আসে দীপকের । সামনে দীপকের স্বপ্ন, বড় ফুটবলার হয়ে টাকা রোজগার করবে । সেই টাকা দিয়ে বাবা-মায়ের সমস্ত কষ্ট দুঃখ দূর করবে ।    

 তাঁর জীবনের লক্ষ্য আগামী দিনে মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গলের মতো কলকাতার নামী ক্লাবগুলিতে খেলার সুযোগ করে নেওয়া ।