দ্য পিপল ডেস্কঃ ত্রিপুরা পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযান অব্যাহত। আগাম খবরের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার পশ্চিম জেলার অন্তর্গত জিরানীয়া মহকুমার এসডিপিও সুমন মজুমদার এবং রাণীরবাজার থানার পুলিশ যৌথ উদ্যোগে মাদক, নগদ টাকা সহ তিন যুবককে আটক করে। 

টি আর-০১এ জেড ০৬৫৭ নম্বরের একটি ছোট গাড়ীতে তল্লাশি চালিয়ে ৪০হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং নগদ ২৪হাজার টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়। সেই সঙ্গে পুলিশ গাড়ী থেকে তিনজনকে আটক করে। ধৃতেরা হল মনির হুসেন(২৮), অলিক হুসেইন(৩০) এবং প্রীতম ভৌমিক।

জিরানীয়া মহকুমার এসডিপিও সুমন মজুমদার জানান, আটক করা সামগ্রীর বাজার মূল্য আনুমাণিক ৪০ লক্ষ টাকা। তিনি আরো জানান ধৃতদের জিরানীয়া মহকুমার অন্তর্গত মাধববাড়ী আন্তরাজ্য ট্রাক টার্মিনাস থেকে আটক করা হয়েছে। এই অভিযানে সুমন মজুমদারের সঙ্গে ছিলেন রাণীর বাজার থানার ওসি সৌমেন দাসসহ বিশাল পুলিশ বাহিনী। নগদ টাকা ও মাদক ব্যবসার কাজে ব্যবহৃত করা হতো বলে প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের ধারনা।

অপর দিকে ত্রিপুরার সিপাহীজলা জেলার শ্রীমন্তপুর বিওপি’র বি এস এফ জওয়ানরা সীমান্তে টহল দেওয়ার সময় কাঁটাতারের বেড়ার পাশে কিছু প্যাকেট পড়ে থাকতে দেখেন। সন্দেহের জেরে প্যাকেট খুলে তারা দেখেন এগুলিতে ইয়াবা ট্যাবলেট রয়েছে। পরে বিওপি’তে এনে দেখা যায় প্যাকেট গুলিতে মোট ৯ হাজার ৭০০ পিস ইয়াবা রয়েছে। এগুলির বাজার মূল্য ৪৮ লাখ ৫০হাজার টাকা। মাদক গুলিকে সোনামুড়া থানায় জমা করা হয়েছে।

পাশাপাশি সিপাহীজলা জেলার কলমচৌড়া বিওপি’র জওয়ানরা বৃহস্পতিবার(১১ জুলাই) ভোর রাতে সীমান্তে টহল দেওয়ার সময় বাংলাদেশে পাচারের আগে ৪৩টি গরু আটক করে। তবে পাচারকারীরা বিএসএফের তাড়া খেয়ে গরু ফেলে পালিয়ে যায়। 

বিএসএফের তরফে জানানো হয়েছে, গরুগুলির আনুমাণিক বাজার মূল্য প্রায় ২লাখ ৯৫ হাজার টাকা। পরে গরুগুলিকে কলমচৌড়া থানার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে বিএসএফ এর ত্রিপুরা ফ্রন্টিয়ার্সের তরফে।