দ্য পিপল ডেস্কঃ মৃত্যুর পর বাড়িতে খবর দিতে গিয়ে তাজ্জব ঘটনার সাক্ষী থাকলেন মুম্বই পুলিশ। ভিক্ষুকের ঘর থেকে মিলল ৮ লক্ষ ৭৭ হাজার টাকার নগদ অর্থ, তার মধ্যে দেড় লক্ষ টাকার কয়েন। কয়েন গুনতে গুনতে গলদঘর্ম অবস্থা পুলিশ কর্মীদের।

জানা গেছে, রেল লাইন পারাপার হতে গিয়ে দুর্ঘটনায় মারা যায় মুম্বইয়ের গোভান্দি এলাকার পেশায় ভিক্ষুক বির্জু চন্দ্র আজাদ। পুলিশ সেই খবর দিতে পৌঁছয় বির্জু চন্দ্রর বাড়িতে।

বাড়িতে কেউ না থাকায় ঘরে তল্লাশি চালায় পুলিশ। আর তার পর সামনে আসে এই দৃশ্য। যা দেখে চোখ কপালে উঠেছে পুলিশ কর্মীদের।

ভিক্ষা করেই ওই বিশাল পরিমাণ অর্থ জমিয়েছিল বির্জু। কিন্তু লেখাপড়া না জানায় তা কোনো ব্যাঙ্কে রাখেনি। পরিবারে কোনো সদস্য না থাকায় কোনো অর্থই কাজেও লাগাতে পারেনি বির্জু। ঘরেই রাখা ছিল বিপুল পরিমাণ অর্থ।


তবে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত ভিক্ষাবৃত্তি চালিয়ে গেছে বির্জু। এত বিপুল পরিমাণ অর্থ থাকতেও তাই নিজে কিছুই ভোগ করে যেতে পারেনি, এই আফশোষই শোনা গেছে উপস্থিত পুলিশ কর্মীদের কথায়।

রেল পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বির্জুর আদি বাড়ি রাজস্থানে, মুম্বইতে সে একাই থাকত। রাজস্থানে তার পরিবার আছে।

উত্তরাধিকারী হিসেবে আছে এক ছেলে। আইনত বির্জুর জমানো অর্থ পাবে তার ছেলে। ছেলের খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here