দ্য পিপল ডেস্ক: সাতসকালে ঘটে গেল মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। তীব্র গতিতে ছুটে আসা বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হল ৭ পুণ্যার্থীর। শুক্রবার কাকভোরে  ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহরে।  

ফুটপাথে ঘুমোচ্ছিলেন কিছু মানুষ। শুক্রবার ভোরে ঘুমন্ত অবস্থায় তাঁদের পিষে দেয় একটি তীব্র গতিতে ধেয়ে আসা বাস। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ৭ জনের। মৃতদের মধ্যে চারজন মহিলা ও তিনজন শিশু। বুলন্দশহরের নারোরায় গঙ্গাঘাটের কাছে ঘটে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা।   


প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে, গঙ্গায় পুণ্য স্নানের জন্য বুলন্দশহরে নারাউরা ঘাটের দিকে যাচ্ছিলেন একদল পুণ্যার্থী। রাত হয়ে যাওয়ায় বিশ্রাম নেওয়ার জন্য তাঁরা রাস্তার ফুটপাথে শুয়ে পরেন। অন্যদিকে তীব্র গতিতে আসছিল একটি পুণ্যার্থী বোঝাই বাস। পুণ্যার্থীদের নিয়ে বাসটি বৈষ্ণবদেবী থেকে ফিরছিল। রাস্তার ফুটপাথে ঘুমিয়ে থাকা পুণ্যার্থীদের বাসের চাকায় একেবারে পিষে দেয়।

স্থানীয়দের দাবি, এই মর্মান্তিক ঘটনার পরে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন স্থানীয়রা। স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে মৃতদেহগুলি উদ্ধার করে। ঘাতক বাসের চালক পলাতক।

পুলিশের অনুমান, বাসের চালক মদ্যপ অবস্থায় থাকার জন্য হয়ত এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। তবে এখনও পর্যন্ত ওই ঘাতক বাস চালকের খোঁজ মেলেনি। ওই বাস চালকের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here